অভিযান চালাচ্ছেন সেনা কমান্ডোরা

 

সিলেটের শিববাড়িতে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালাচ্ছেন সেনাবাহিনীর প্যারা-কমান্ডোরা। ৫০ জনের মতো প্যারা কমান্ডো ‘আতিয়া মহলের’ ভেতর প্রবেশ করেছেন বলে জানিয়েছেন অভিযান সংশ্লিষ্টরা। কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সোয়াত টিমের সদস্যরা বাড়ির বাইরে অপেক্ষা করছেন। শনিবার সকাল ৮টার দিকে ‘অপারেশন স্প্রিং রেইন’ নামে এই অভিযান শুরু হয়েছে।

সিলেট মহানগরের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার জেদান আল মুসা বলেন, ‘অভিযান শুরু হয়েছে। প্যারা-কমান্ডো অভিযান চালাচ্ছে। পুলিশ, সোয়াত ও প্যারা-কমান্ডোর সদস্যরা বাইরে থেকে বাড়িটিকে ঘিরে রেখেছে।’

উল্লেখ্য গতবছর গুলশান হামলার ঘটনার পর এই প্রথম কোনও জঙ্গিবিরোধী অভিযানে অংশ নিচ্ছে সেনাবাহিনী।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আতিয়া মহলের ভেতরে প্রবেশ করেছে ৫০-৬০ জন সদস্য। বাড়ির বাইরে অবস্থান নিয়েছেন প্যারা-কমান্ডো ও সোয়াত টিমের সদস্য আরও প্রায় এক থেকে দেড়শ সদস্য।

শুক্রবার (২৪ মার্চ) ভোর থেকে সিলেটের ওই বাড়িটি ঘিরে রাখে পুলিশ। পাঁচতলা একটি বাড়ির নিচতলায় জঙ্গিরা অবস্থান করছে। আশপাশের সব বাড়ি থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়া হয়। শুক্রবার সকালে আতিয়া মহল থেকে বাইরের দিকে গ্রেনেড ছোড়া হয়েছে বলে স্থানীয়রা জানান।
এর আগে শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডোরা সিলেটে ওই জঙ্গি আস্তানার কাছে পৌঁছান। মেজর রোকন ও মেজর রাব্বি’র নেতৃত্বে প্যারা-কমান্ডো বাহিনী পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন।
আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ অধিদফতরের (আইএসপিআর) পরিচালক লেফট্যানেন্ট কর্নেল রাশিদুল হাসান শুক্রবার বলেন, ‘সিলেটের জঙ্গি আস্তানার অভিযানে সেনাবাহিনীর প্যারা-কমান্ডো অংশ নেবে।’

এর আগে বিকাল ৩টা ৫০ মিনিট থেকে ঢাকা থেকে গিয়ে আতিয়া মহলকে ঘিরে রাখে সোয়াত টিমের সদস্যরা।