মিড জনসন কিনছে রেকিট বেনকিজার

 

যুক্তরাষ্ট্রের শিশুখাদ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান মিড জনসন কিনতে সম্মত হয়েছে ব্রিটেনের কোম্পানি রেকিট বেনকিজার লিমিটেড। কোম্পানিটি ১৬.৬ বিলিয়ন ডলারের বিনিময়ে এ মালিকানা কিনে নিচ্ছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মিড জনসন মূলত শিশুখাদ্য প্রস্তুত করে এনফা ব্র্যান্ড নামে পণ্য বাজারজাত করে। ২০১৬ সাল শেষে কোম্পানিটির মোট বিক্রির পরিমাণ ছিল ৩.৭ বিলিয়ন ডলার। তবে কোম্পানিটি কিনে নিতে রেকিট বেনকিজারের মোট খরচ হচ্ছে ১৭.৯ বিলিয়ন ডলার। কারণ কিছু ঋণ রয়ে গেছে মিড জনসনের। যার দায় নিতে হচ্ছে রেকিটের।

মিড জনসনের চেয়ারম্যান জেমস কোরনিলিয়াস বলেন, সর্বোচ্চ দরে শেয়ার দেওয়া হয়েছে। তারা প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার ২৯ শতাংশ বেশি দিয়ে ৯০ ডলারের কিনেছেন। যেটা ১ ফেব্রুয়ারি বিডিং শুরুর আগে ৬৯.৫০ ডলার ছিল।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ মালিকানা নেওয়ার ফলে কোম্পানিটি চীনে ভোগ্যপণ্যের বাজারে প্রধান নিয়ন্ত্রক হতে পারবে। কারণ ২০১৫ সালে চীন ১ শিশুনীতি থেকে সরে আসায় সেখানে নতুন সুযোগের সৃষ্টি হয়েছে।

শেষ বছরে চীনের শিশু জন্মের হার ছিল এ শতাব্দীর মধ্যে বেশি। ২০১৫ সালে এর পরিমাণ ৭.৯ শতাংশ।

রেকিট বেনকিজার বলছে, কোম্পানিটি কিনতে বন্ড ছেড়ে ব্যাংক থেকে টাকা সংগ্রহ করা হবে। আমেরিকা মেরিল লিন্স, ডয়েচে ব্যাংক এবং এইচএসবিসি ব্যাংক থেকে টাকা নেওয়া হবে।

তবে এ নিয়ে উভয় কোম্পানির রেগুলেটর ও শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদন নেওয়া হবে। যদি রেকিট বেনকিজারের শেয়ারহোল্ডাররা অনুমোদন না দেয়, তবে মিড জনসনকে ৪৮০ মিলিয়ন ডলার পরিশোধ করতে হবে।

রেকিট বেনকিজার বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে ওষুধ ও রসায়ন খাতে তালিকাভুক্ত। ১৯৮৭ সালে তালিকাভুক্ত এ কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের সবচেয়ে বেশি লভ্যাংশ দেওয়ার তালিকায় শীর্ষ স্থানে রয়েছে। কোম্পানিটির মোট শেয়ারের ৮২ দশমিক ৯৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে উদ্যোক্তা পরিচালকদের হাতে। সরকার কাছে রয়েছে ৩ দশমিক ৭৭ ও প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীর কাছে রয়েছে ৫ দশমিক ৫০ শতাংশ শেয়ার। বিদেশি বিনিয়োগকারীর কাছে রয়েছে কোম্পানিটির ২ দশমিক ২৫ শতাংশ শেয়ার। বাকি ৫ দশমিক ৫১ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীর হাতে।

Leave a comment